সোমবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২১, ০৬:০৩ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
প্রধান শিক্ষিকার বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ, তদন্ত করছে দুদক ও মাউশি। কালের খবর তাড়াশে সেচ্ছাসেবকলীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত। কালের খবর যশোর সদরে ইউপি নির্বাচন ৫ জানুয়ারি। কালের খবর কুমড়া বড়ি তৈরি করতে ব‍্যস্ত তাড়াশের কারিগররা। কালের খবর বাঘারপাড়ায় নির্বাচনী সহিংসতায় চেয়ারম্যান প্রর্থীসহ আহত ২০-অফিস ভাংচুর। কালের খবর যশোর সদর হাসপাতালে দালালদের কাছে জিম্মি রোগীরা। কালের খবর উৎপাদনে নতুন ‘দেশি মুরগি’, ৮ সপ্তাহে হবে এক কেজি। কালের খবর ইউপি নির্বাচনে শাহজাদপুরের ১০ ইউনিয়নে আ.লীগের মনোনয়ন পেলেন যারা। কালের খবর যশোরের শার্শায় শোকজের জবাবের আগেই যুবলীগ নেতা বহিষ্কার! কালের খবর জাতীয় শ্রমিক লীগের উদ্যোগে বীর মুক্তিযোদ্ধা ফজলুল হক মন্টুর প্রথম মৃত্যু বার্ষিকী পালিত। কালের খবর
শাহজাদপুরে দু‘পক্ষের সংঘর্ষে আহত ২০। কালের খবর

শাহজাদপুরে দু‘পক্ষের সংঘর্ষে আহত ২০। কালের খবর

নয়ন ইসলাম , শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি, কালের খবর ঃ  গতকাল শনিবার ভোরে শাহজাদপুর উপজেলার কায়েমপুর ইউনিয়নের বৃ-আঙ্গারু গ্রামে পূর্ববিরোধ ও আধিপত্যের জের ধরে লালু গ্রুপের সাথে নিজাম গ্রুপের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনায় উভয়পক্ষের কমপক্ষে ২০ জন আহত হয়েছে। আহতরা হলেন, নিজাম উদ্দিন (৫০), রেজাউল (২৫), মানিক প্রামানিক (৩০), খেজের (৫০), হাফিজুর (৩০), উজ্জ্বল (৪৫), নবীর (৩৮), আমির আলী (৪৫), রায়হান আলী (২৭), ইউনুস আলী (৫০), মহির উদ্দিন (৩৫), আলাউদ্দিন (২৫), জলিল (৫০), আলেপ (৪০), আজিজ (৩০), আয়নাল মোল্লা (৪৫), আব্দুল আলীম (৩০), আব্দুল্লাহ (২৫), আনোয়ার হোসেন (২৫)। আহতদের শাহজাদপুর, সিরাজগঞ্জ ও বগুড়ার বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ ঘটনায় এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।
এলাকাবাসি জানায়, গত ২০১৯ সালের ২৪ নভেম্বর উপজেলার বৃ-আঙ্গারু গ্রামে দু‘পক্ষের সংঘর্ষ চলাকালে নিজাম গ্রুপের আউয়াল প্রামাণিক (৩০) ফালাবিদ্ধ হয়ে নিহত হলে নিহতের পিতা বাদী হয়ে লালু গ্রুপের ৪১ জনের বিরুদ্ধে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করে। আউয়াল হত্যা মামলার আসামী পক্ষ লালু গ্রুপের লোকজন সংঘবদ্ধ হয়ে রাতের আধারে বাড়ি ফিরে এলাকায় প্রভাব বিস্তারের চেষ্টা করলে উভয়পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বেধে যায়। সংঘর্ষ চলাকালে উভয় পক্ষের মধ্যে ধাওয়া, পাল্টা ধাওয়া ও ব্যাপক ইটপাটকেল নিক্ষেপ ও কয়েকটি বাড়িঘর ভাংচুরের ঘটনা ঘটে।
এ বিষয়ে কায়েমপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক আজাদুল ইসলাম জানান, ‘লালু গ্রুপ সংঘবদ্ধ হয়ে ইতিপূর্বেও রাতের আধারে কয়েকবার গ্রামে ঢুকে সন্ত্রাস, নৈরাজ্য সৃষ্টির চেষ্টা করেছে এবং বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ভাবে অনেককেই হত্যার হুমকি দিয়েছে।’ অন্যদিকে, লালু গ্রুপের সমর্থকেরা এসব অভিযোগ অস্বীকার করেছে।
এ বিষয়ে শাহজাদপুর থানার ওসি শাহিদ মাহমুদ খান বলেন, ‘খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। এ ঘটনায় অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com