শনিবার, ১৩ অগাস্ট ২০২২, ০২:৫৫ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
জলবায়ু পরিবর্তন ও বাংলাদেশে প্রভাব সাভারে সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে অপ-প্রচারের প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ। কালের খবর টাঙ্গাইলের সখীপুর অভিনব কায়দায় গরু চুরি। কালের খবর নূরকে ৭ দিনের মধ্যে ব্রাহ্মণবাড়িয়া আদালতে হাজিরের নির্দেশ। কালের খবর শিক্ষকদের অধিকার ও মর্যাদা সুরক্ষা সময়ের দাবি : ডাঃ মিজান চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে স্ক্র্যাপ জাহাজে ডাকাতি কালে গ্রেফতার ৩ জনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। কালের খবর সিরাজগঞ্জের খেইশ্বর হাফিজিয়া মাদ্রাসার নতুন ভবনের ছাদ ঢালাইয়ের উদ্বোধন। কালের খবর শাহজাদপুরে মনিরামপুর বাজারে বাসের টিকিট কাউন্টারের উদ্বোধন। কালের খবর দোহারে ১৫ দিন থেকে মসজিদের মুয়াজ্জিন নিখোঁজ, পাগল প্রায় বাবা মা। কালের খবর নবীনগর পৌরসভায় সুবিধা বঞ্চিত মুসলিম পরিবার গুলো, দেখার যেন কেউ নেই। কালের খবর
তাড়াশে সরিষা-ধান ক্ষেতে লেটুরা পোকার আক্রমণে দিশেহারা কৃষক। কালের খবর

তাড়াশে সরিষা-ধান ক্ষেতে লেটুরা পোকার আক্রমণে দিশেহারা কৃষক। কালের খবর

আতিকুল ইসলাম তাড়াশ (সিরাজগঞ্জ)প্রতিনিধি, কালের খবর  :  সগুনা ইউনিয়নের কুন্দইল গ্রামের ভুক্তভোগী কৃষক তৈয়ব আলী জানান, এবছর ১৬ বিঘা জমিতে তিনি সরিষার আবাদ করেছেন। আর ১০ থেকে ১২ দিন পর জমি থেকে পাকা সরিষা তুলে বাড়িতে নেওয়া যেত। কিন্তু এরই মধ্যে অসংখ্য লেটুরা পোকা আক্রমণ করে সরিষার আধা পাকা দানা চেটে খেয়ে ফেলছে।
একই গ্রামের আরেক ভুক্তভোগী কৃষক আজিজল রহমান বলেন, লেটুরা পোকা সরিষার ক্ষেত থেকে বোরো ধানে ছড়িয়ে পড়ছে। পোকাগুলো সদ্য রোপণকৃত ধান গাছের কাণ্ড খেয়ে নিচ্ছে।
সরিষার ক্ষেত ও বোরো ধানে লেটুরা পোকার আক্রমণে অনুরূপ ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে পড়েছেন সগুনা ইউনিয়নের কুন্দইল, ধাপতেতুলিয়া, কামাড়শন, মাকোড়শনসহ বেশ কয়েকটি গ্রামের হাজারো কৃষক।
উপজেলা কৃষি বিভাগ জানিয়েছেন, এবছর ৪ হাজার ৩শ ৫০ হেক্টর জমিতে সরিষার আবাদ করা হয়েছে। আর বোরো ধান আবাদের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ২২ হাজার ২শ হেক্টর জমিতে।
সরেজমিনে বুধবার বিকেলে কুন্দইল ও ধাপতেতুলিয়া গ্রাম এলাকার বিস্তীর্ণ মাঠে দেখা গেছে, সরিষার গাছে ছোট-বড় অসংখ্য লেটুরা পোকা লেগে আছে। আর বোরো ধানের জমির মধ্যে যেখানে লেটুরা পোকা রয়েছে, সেখানে একটি ধান গাছেরও কান্দ নেই। সব পোকায় খেয়ে নষ্ট করে ফেলেছে।
এ প্রসঙ্গে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা লুৎফুননাহার লুনা বলেন, ‘সরিষার ক্ষেতে কীটনাশক স্প্রে করতে বলা হয়েছে। অথবা চিটা গুড়ের সাথে কীটনাশক মিশিয়ে বড়ি তৈরি করে তা ছিটিয়ে দিতে বলা হয়েছে কৃষকদের। বোরো ধানের জমির পোকা বিস্তার লাভ করতে পারবে না। পানিতে পড়ে এমনিতেই মরে যাবে।’

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com