বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ০৮:২২ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
ইপিজেড থানা পুলিশের অভিযানে অসামাজিক কাজে লিপ্ত থাকায় নারী ও পুরুষ মিলে (১২) জন গ্রেফতার। কালের খবর মুরাদনগরে আনারসে ভোট চেয়ে গণসংযোগ করলেন ব্যারিস্টার অনন। কালের খবর যশোরের কেশবপুরে শান্তি স্থাপন ও সহিংসতা নিরসনে (পিএফজি, র) সভা অনুষ্ঠিত। কালের খবর রায়পুরার ছাত্রলীগ নেতা মামুনকে জড়িয়ে মিথ্যা ও হয়রানি মূলক ধর্ষণ মামলাসহ একাধিক মামলা করায় সর্বমহলে নিন্দা। কালের খবর মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন-২০১৮ এর ৫৬ ধারার প্রয়োগ’ শীর্ষক সেমিনারে.প্রধান অতিথি সিএমপি কমিশনার। কালের খবর সহিংসতা নয়-শান্তির জন্য আমরা-এই শ্লোগান কে সামনে রেখে বাঘারপাড়ায় অনুষ্ঠিত হলো (পিএফজির) সম্মিলিত কার্যক্রম ও পরিকল্পনা প্রণয়ন সভা। কালের খবর ঢাকা জেলা রেজিস্ট্রার অহিদুল ইসলাম সাময়িক বরখাস্ত। কালের খবর বাঘারপাড়া প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি সাংবাদিক লক্ষণ চন্দ্র মন্ডলের মৃত্যুতে বিভিন্ন মহলের শোক। কালের খবর যুবদের নেতৃত্বে সঠিক কর্মপরিকল্পনা গ্রহনের ফলে , সমাজে সহিংসতা নিরসন ও শান্তি স্থাপন হতে পারে। কালের খবর কোরবানির পশু প্রস্তুত করতে ব্যস্ত সাতক্ষীরার খামারিরা। কালের খবর
আখেরি মোনাজাত বাংলাতে হওয়ায় সন্তুষ্ট মুসল্লিরা। কালের খবর

আখেরি মোনাজাত বাংলাতে হওয়ায় সন্তুষ্ট মুসল্লিরা। কালের খবর

কালের খবর রিপোর্ট :: বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বের আখেরি মোনাজাত গতবারের মত এবারও আরবী ও বাংলা ভাষায় করা করা হয়েছে। বাংলাদেশের তাবলিগি মুরব্বি মাওলানা জোবায়ের মোনাজাত পরিচালনা করেন। এর আগের ইজতেমাগুলোতে ‍দিল্লীর মুরব্বিরাই উর্দুতে দোয়া করতেন। তবে এ দু’বছর মাওলানা জোবায়ের বাংলা ভাষায় দোয়া করছেন। বিশ্ব ইজতেমার এই মোনাজাত আমাদের জাতীয় প্রায় সবগুলি গণমাধ্যমে সরাসরি সম্প্রচারিত হওয়ায় শুধু টঙ্গিতে উপস্থিত মুসুল্লিরাই নয় সারা দেশের মানুষ এমনকি সারাবিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে মানুষজন এই মোনাজাতে একসাথে হাত উঠিয়ে থাকেন।

বাংলায় মোনাজাতে অংশ নিতে পেরে বাংলা ভাষাভাষী মুসল্লিরা সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। শুধু ভাষার কারণেই নয়; বিষয় বৈচিত্র্যের দিক থেকেও এবারের বিশ্ব ইজতেমা ছিল অনন্য। উলামায়ে কেরামের সম্পৃক্ততা বাড়ায় বয়ানের মধ্যেও যোগ হয়েছিল ভিন্নমাত্রা। গাজীপুর জেলার মুরগী ব্যবসায়ী শরীফুল ইসলাম জানান, ‘আখেরী মোনাজাত বাংলা ভাষায় হওয়ায় আমাদের জন্য সুবিধা হয়েছে। আমরা এখন বুঝতে পারি হুজুর মোনাজাতে আমাদের জন্য কী দোয়া করছেন’। আতর ব্যবসায়ী কামরুল মিয়া বলেন, ‘আগের মোনাজাতে আমরা হুজুরের কথা বুঝতে পারতাম না। শুধু ‘আমীন’ ‘আমীন’ বলতাম। এ বছর বাংলাতে মোনাজাত করায় আমরা খুশি হয়েছি’।

মিরপুরের বাসিন্দা আবুল কাশেম বলেন, দীর্ঘদিন ধরে বিশ্ব ইজতেমার মোনাজাতে অংশ নিচ্ছি। আমি উর্দু-আরবী বুঝি না। আগে ওইসব ভাষায় পরিচালিত মোনাজাতের কথা বুঝতে পারতাম না। সকলের সঙ্গে শুধু আমিন, আল্লাহুম্মা আমিন বলতাম। গতবার থেকে মোনাজাত বাংলায় হওয়ায় এর মোনাজাতের মর্ম বুঝতে পেরেছি। এ জন্য তিনি সন্তোষ প্রকাশ করেন।

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com