বুধবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২:০৬ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
চরফ্যাসনে চার্চ অব বাংলাদেশের নিজস্ব সম্পত্তি দখল করেছেন বেসরকারি সংস্থা কোষ্ট ট্রাষ্ট “ শাজজাদপুরে প্রফেসর ড. এমএ মুহিতের পক্ষ থেকে ৪৬০ টি প্রতিবন্ধি শিশুর পরিবারের মাঝে খাদ্য-সামগ্রী বিতরণ ঝিনাইদহে মাদকের জিরো টলারেন্স ঘোষনা, পুলিশ সুপার মোঃ হাসানুজ্জামান সিলেট মহানগর দায়রা জজ আদালত বর্জন করলেন আইনজীবীগন। সিলেটে নিম্নমানের অবৈধ সিগারেটে সয়লাব। কালের খবর   ঝিনাইদহে এক হতদরিদ্র কৃষকের ধরন্ত করলা ক্ষেত কেটে দিয়েছে দূর্বৃত্তরা। কালের খবর ডেমরায় খানাখন্দ ও কর্দমাক্ত সড়কে সীমাহীন দুর্ভোগ। কালের খবর সাংবাদিক মামুনের উপর হামলা চরফ্যাসন প্রেস ক্লাবের নিন্দা। কালের খবর চরদিগলদীর নোয়াকান্দী গ্রামে একটি ব্রিজ জন্য হাজার মানুষের দুর্ভোগ। কালের খবর ট্যালেন্টপুলে বোর্ড বৃত্তি পেয়ে আবারো আলোচনায় এসেছে ঝিনাইদহের সেই মেধাবী তিন বান্ধবী। কালের খবর
পড়া না পারায় মাদ্রাসা শিক্ষার্থীকে পিটিয়ে জখম, হাসপাতালে ভর্তি। কালের খবর

পড়া না পারায় মাদ্রাসা শিক্ষার্থীকে পিটিয়ে জখম, হাসপাতালে ভর্তি। কালের খবর

Nagad Banner

ভূঞাপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা: নিশাত সাইয়ীদা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

রোববার সন্ধ্যার দিকে ইবরাহীম খাঁ হাফিজিয়া মাদ্রাসা ও ইসলামী কিন্ডার গার্টেনে এই ঘটনা ঘটে। আহত তৌফিকুর রহমান (১২) পৌর এলাকার পশ্চিম ভূঞাপুর গ্রামের তুষার আহম্মেদ বুলবুলের ছেলে ও ইবরাহীম খাঁ হাফিজিয়া মাদ্রাসা ও ইসলামী কিন্ডার গার্টেনের হেফজ বিভাগের শিক্ষার্থী।

আহত শিক্ষার্থী তৌফিকুর রহমান বলেন, পড়া না পারার কারণে শিক্ষক হযরত আলী গাছের ডাল দিয়ে মারধর করেছে। শনিবারও একই রকম মারধর করে। পরে আজ মারের যন্ত্রণা সহ্য না করতে পেরে অভিভাবকদের জানালে তারা আমাকে হাসপাতালে ভর্তি করে।

অভিযুক্ত শিক্ষক হযরত আলী মারধরের কথা স্বীকার করে বলেন, গত কয়েকদিন ধরে ওই শিক্ষার্থী কোনো পড়া দিতে পারেনি। বারবার বুঝানোর পরও সে পড়া দিতে না পারায় রাগান্বিত হয়ে তাকে বেত দিয়ে মারধর করেছি । মারপিট একটু বেশি হয়ে গেছে। আমি এতে খুবই মর্মাহত।

ভূঞাপুর ফাযিল মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল ও ইবরাহীম খাঁ হাফিজিয়া মাদ্রাসার সভাপতি আব্দুছ সোবহান বলেন, ঘটনাটি শুনেছি। তবে কী কারণে শিক্ষার্থীকে মারধর করা হয়েছে, সেটা জানতে পারিনি। হাসপাতালে ওই শিক্ষার্থীকে দেখতে গিয়েছিলাম।

ভূঞাপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা: নিশাত সাইয়ীদা বলেন, ওই শিক্ষার্থীর হাত-পা, উরু, ঘাড়েসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে মারধরের কারণে লাল হয়েছে ও ফুলে গুরুতর জখম হয়েছে। শিক্ষার্থীকে হাসপাতালে ভর্তি রেখে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোছা. নাসরীন পারভীন বলেন, ঘটনাটি শুনেছি। শিক্ষকসহ ওই প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com